বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৪:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ

শব্দদূষণ থেকে বাগেরহাট বাসী বাঁচতে চায়।

মোস্তাফিজুর রহমান লাকি। বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি, এ বি সি টেলিভিশন।
  • Update Time : রবিবার, ২২ আগস্ট, ২০২১
  • ৬৯ Time View

 

চীন থেকে আমদানীকৃত চাষাবাদ, পানিসেচ এর জন্য আনা বিভিন্ন ধরনের ডিজেল ইঞ্জিন দিয়ে দেশী বিভিন্ন ওয়ার্কশপে তৈরি হয় এসব উচ্চমাত্রার শব্দ দূষণকারী যান। স্বল্প টাকার বিনিময়ে তৈরি এসব অবৈধ যান যার নেই উন্নতমানের ব্রেক সিস্টেম, কন্ট্রোলিং সিস্টেম অথচ এক ধরনের অসাধু পুলিশ সদস্যদের হাতে টাকা গুঁজে দিয়ে, মাসোহারা সিষ্টেম করে দাপিয়ে বেড়ায় জেলার সড়ক, মহাসড়ক গুলিতে।

বাগেরহাটের সড়ক মহাসড়ক থেকে শুরু করে অলিতে গলিতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি যান নসিমন, করিমন, পটপটি, ভটভটি,আলমসাধু, ট্রলি সহ নাম না জানা এই বাহনগুলি।

কখোনো গরু ভর্তি করে, বিভিন্ন পন্য সামগ্রী নিয়ে ট্রাফিক সিষ্টেমকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে এক জেলা থেকে অন্য জেলায় যাতায়াত করছে। যেখানে বৈধ ভাবে আমদানীকৃত একটি মিনি পিকআপ ৭ থেকে ১৫/২০ লাখের মধ্যে কিনে বৈধ রুট পারমিট নিয়ে রাস্তায় চলতে গিয়ে হরহামেশা পুলিশি হয়রানির শিকার হয় সেখানে ফিটনেস,রুট পারমিট ছাড়া এই যানগুলি কিভাবে সড়কে মহাসড়কে দাপিয়ে বেড়ায় এবং দুর্ঘটনা ঘটায় তা কারও বোধগম্য নয়।

বাগেরহাট জেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশী দৌরাত্ম্য দেখা যায় খুলনা মোংলা মহাসড়কের পাশে অবস্হিত সবচেয়ে বড় মাছের পোনার আড়ৎ ফয়লা বাজারে, এখান থেকে সকাল হতেই ঝাঁকে ঝাঁকে নসিমন নামক একপ্রকার যান শব্দদূষণের উচ্চ মাত্রা নিয়ে জেলার বিভিন্ন অঞ্চলে ছুটে যায়,মহাসড়ক দিয়ে যাওয়ার সময় এরা সঠিক নিয়ন্ত্রন ব্যাবস্হা না থাকায় হরহামেশা দুর্ঘটনা ঘটায়।

সম্প্রতি খুলনা সিটি মেয়রকে বহন করা গাড়ী এই যানের ধাক্কায় দুর্ঘটনা কবলিত হয়।সৌভাগ্যক্রমে তিনি অক্ষত অবস্হায় থাকেন। এছাড়াও এমন কোনো দিন নেই জেলার কোথাও না কোথাও এই যানের কারনে দুর্ঘটনা না ঘটছে। তবে সবচেয়ে বড় বিষয় হলো এর বিকট শব্দ প্রতিদিন যেভাবে শব্দদূষণ করে তাতে জেলার অধিকাংশ মানুষ বিশেষ করে শিশুরা মারাত্বকভাবে ক্ষতিগ্রস্হ হচ্ছে এর উচ্চমাত্রার শব্দ শিশুদের কানের ক্ষতি করে শ্রবন প্রতিবন্দী করছে।এছাড়া এর উচ্চমাত্রার শব্দ নীরব ঘাতক হয়ে মানুষের মাঝে, হৃদ রোগ, মাইগ্রেন সমস্যা, কানে শোনার সমস্যা, উচ্চ রক্তচাপ এমনকি গর্ভস্হ শিশুরও মারাত্বক ক্ষতি করছে, এক সমীক্ষায় দেখা গেছে এই বাহনে চড়া গর্ভবতী মহিলাদের অকাল গর্ভপাত বেশী হওয়ার প্রবনতা রয়েছে,আরেক সমীক্ষায় দেখা গেছে বিমানবন্দর এলাকায়ই শুধু শব্দ দূষণে আশেপাশের ৫০/৬০% শিশুরা হয় মানষিক প্রতিবন্দী অথবা শ্রবণ প্রতিবন্ধী হয়ে যাচ্ছে। সেখানে এই নসিমন করিমন নামক অবৈধ যানের উচ্চমাত্রার শব্দ তো আরও বেশী ঝুঁকি তৈরি করছে।

তাই নতুন প্রজন্মকে এই ভয়াবহ বিপর্যয় থেকে বাঁচাতে অনতিবিলম্বে এই উচ্চমাত্রার শব্দ দূষণকারী যানকে নিষিদ্ধ করে এই পেশার সঙ্গে জড়িতদেরকে অন্যপেশায় পুনর্বাসন সহ পরিবেশ বান্ধব বিভিন্ন যান তৈরিতে উৎসাহিত করতে সরকার তথা স্হানীয় প্রশাসন কে যথাযথ ভূমিকা এবং এই অবৈধ জীবন বিধ্বংসী যানকে চিরতরে নির্মূল করতে অনুরোধ জানিয়েছেন জেলার সচেতন মহল।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 abcbdtv
Design & Develop BY ABC BD TV
themesba-lates1749691102